ফেনীর যুবলীগ নেতা সাখাওয়াতকে কুপিয়ে জখম

Total Views : 132
Zoom In Zoom Out Read Later Print

নিজস্ব প্রতিবেদক

ফেনী-২ আসনের সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারীর সাজা কম খাটা নিয়ে মামলার বাদী যুবলীগ নেতা এম. সাখাওয়াত হোসেনকে বুধবার (১৭ জুলাই) দুপুরে ফেনীর মধুপুরের নিজ বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

পরে স্থানীয়রা তাকে পুলিশের সহায়তায় উদ্ধার করে মুমূর্ষু অবস্থায় ২৫০ শয্যা ফেনী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।আশংকাজনক অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। হাসপাতালে উপস্থিত সাংবাদিকদের এম. সাখাওয়াত হোসেন বলেন, তিনি মঙ্গলবার ফেনীর আদালতে একটি মামলায় হাজিরা দিতে আসেন। মঙ্গলবার বাড়িতে গেলে দুপুরে জোহরের নামাজের পূর্ব মুহুর্তে ২০/২৫ জনের একদল অস্ত্রধারী দূর্বৃত্ত তাকে জিম্মি করে বাড়ির পাশে নিয়ে গিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা করে। এসময় তার আত্নচিৎকারে আশপাশের লোক এগিয়ে এলে দূর্বৃত্তরা মৃত ভেবে ফেলে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন পুলিশে খবর দিলে ফেনী মডেল থানার ওসি মো. আলমগীর হোসেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মুমূর্ষু রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে ফেনী সদর হাসপাতালে নিলে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে আশংকাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

২৫০ শয্যা ফেনী জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডা. রেদোয়ান হোসেন বলেন, রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে জরুরি বিভাগে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা প্রেরণ করা হয়েছে। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে ফ্যাকচার ও জখম রয়েছে। মাথা, মুখমন্ডল, হাত ও পায়ের অবস্থা বেশি মারাত্মক। ফেনীর পুলিশ সুপার খোন্দকার নুরুন্নবী মুঠোফোনে ঘটনার তথ্য নিশ্চিত করেছেন। উল্লেখ্য, এক সময়ের জয়নাল হাজারীর ঘনিষ্ঠ সহচর ও জেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক এম. সাখাওয়াত হোসেন সদ্য অনুষ্ঠিত উপজেলা নির্বাচনের সময়ও তার বাড়িতে হামলা করে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছিলো। পরে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে কারাগারে প্রেরণ করে। ১০/১২ দিন পূর্বে তিনি কারাগার থেকে মুক্তি পান।

See More

Latest Photos