মানবতার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত ঢাকা উত্তরা পশ্চিম থানার এসআই জাহান

Total Views : 634
Zoom In Zoom Out Read Later Print

ঢাকা প্রতিনিধি

ব্যস্ত রাজধানী ঢাকা,লাখ লাখ মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ পুলিশ উত্তরা পশ্চিম থানা।ঢাকা বিমান বন্দর এলাকায় দায়িত্ব পালন করছিলেন উক্ত থানার এসআই বুর জাহান।০৮/১০/২০২০ ইং আব্দুল্লাহপুর সড়কে সিগনাল পড়ে, দাঁড়িয়ে যায় সকল যানবাহন।সিগনাল উঠে গেলে গাড়ি চলা শুরু হয়।তখন বগুড়ার ৭৫ বছর বয়সী সুভাষ চন্দ্র কর্মকার নামে এক বৃদ্ধ রাস্তা পার হতে দৌড় দেয় যার ফলে ড্রাম্প ট্টাকের নিচে চাপা পড়ে যায়।বৃদ্ধের দুটি পা আঘাতপ্রাপ্ত হয়।ঐ সময় দায়িত্ব পালন করা এসআই বুরজাহান আঘাতপ্রাপ্ত বৃদ্ধকে নিয়ে পঙ্গু হাসপাতালে রওয়ানা দেন।হাসপাতালে ভর্তি করিয়ে চিকিৎসা সেবা করতে সহযোগিতা করেন।আহত লোকটির পকেটে ৩৩৫০০/ টাকা ছিল,তা এসআই জাহানের হাতে জমা রাখেন, যা পরে তার ছেলের হাতে তুলে দেন।অতিরিক্ত রক্ত ক্ষরণে বৃদ্ধের মৃত্যু হয়। কিন্তু তার একমাত্র ছেলে প্রশান্ত কুমার কুমার কর্মকার  মৃত বাবাকে নিতে আসতে চাইল না।পিতা পুত্রের সম্পর্ক ভালো না থাকায় এরকম গর্হিত কাজ করেছে ছেলে। তখন এসআই জাহান ফোন করে ছেলেকে আসতে বাধ্য করেন। ছেলে এসে বলেন তার পিতার সাথে তার সম্পর্ক ভালো ছিল না। তারা কর্মকার ব্যবসায়িক কাজে এসে সড়ক দূর্ঘটনায় তার পিতা মৃত্যু বরণ করেছেন।

বৃদ্ধ পিতার প্রতি দায়িত্ব পালন করায় মানবতার পরিচয় দিলেন এসআই জাহান।তার এই মহানুভবতায় ছেলে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন উক্ত এসআই ও পুরো ফোর্সকে,পাশাপাশি ছেলে হিসেবে এই আচরণ করা ভালো হয়নি বলে দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

উল্লেখ্য আহত বৃদ্ধের পকেটে থাকা ৩৩৫০০/ টাকা এক প্রতারক হাতিয়ে নিতে চাইছিল।কিন্তু ঐ টাকাও মৃত ব্যক্তির মায়ের কথামতো ছেলেকে বুঝিয়ে দেন এসআই বুরজাহান।। 

এ বিষয়ে এসআই জাহান বলেন,পুলিশে চাকরি করি চেষ্টা করি নিজেকে উজাড় করে মানুষের সেবা করতে।এটা তারই ধারাবাহিকতা,তবে আমার ওসি স্যারের নির্দেশনায় পুরো টিম মানবিক কাজ করছি।তবে বৃদ্ধ লোকটির মৃত্যুতে খুবই কষ্ট পেয়েছি।বেঁচে থাকলে মনে শান্তি পেতাম।                                                                              

See More

Latest Photos