ইপসার প্রয়াস ২,প্রকল্পের উদ্যোগে স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত

Total Views : 136
Zoom In Zoom Out Read Later Print

মহানগর প্রতিনিধি,চট্টগ্রাম

সেভ দ্য চিলড্রেন এর সহায়তায় ইপসা প্রয়াস-২ প্রকল্পের উদ্যোগে ২৮ অক্টোবর-২০২০ খ্রীঃ  চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন 'র ৮ নং শুলকবহর ওয়ার্ড আরবান কমিউনিটি ভলান্টিয়ারদের নিয়ে কোভিড-১৯ প্রেক্ষাপট এবং স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিষয়ক সভা/ সেশন  অনুষ্ঠিত হয়। নগরীর জাকির হোসেন বাইলেইন এলাকায় অনুষ্ঠিত উক্ত সেশনে উপস্থিত ছিলেন অত্র ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর আলহাজ্ব মোরশেদ আলম, নগর স্বাস্থ্য কেন্দ্রের ( বিবিরহাট)  প্রধান স্বাস্থ্য  কর্মকর্তা ডাঃ শবনম মুস্তারী, ইপসার প্রজেক্ট কো- অর্ডিনেটর সানজিদা আক্তার, প্রজেক্ট অফিসার মুহাম্মদ আতাউল হাকিম, ফিল্ড অফিসার ওসমানগণি প্রমুখ।  স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিধিসমূহ অনুসরণ করে বিশেষত তামমাত্রা গ্রহণ, হাত ধোয়ার মাধ্যমে প্রবেশ,মাক্স পরিধান, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ২৫ জন করে দুইধাপে উক্ত সেশন পরিচালিত হয়। সেশন কার্যক্রম পরিচালিনা করেন ডাঃ শবনম মুস্তারী। তিনি কোভিড পরিস্থিতির অতীত, বর্তমান প্রেক্ষাপট এবং দ্বিতীয় ঢেউ আসলে কি রকম পরিস্থিতির উদ্ভব হতে পারে তাঁর একটি সামগ্রিক এবং গবেষণামূলক চিত্র তুলে ধরে কোভিড পরিস্থিতিতে  স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিধি সম্পর্কিত বিস্তারিত আলোকপাত করেন সেইসাথে মাক্স ব্যবহারের পদ্ধতি,এর স্থায়িত্বকাল, হাত ধোয়ার সঠিক পদ্ধতি, হাঁচি-কাশির ক্ষেত্রে করণীয় সহ স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিবিধ ও অত্যাবশকীয় নির্দেশনা প্রদান করেন।

ইপসা প্রয়াস-২ প্রকল্পের সমন্বয়কারী সানজিদা আক্তার কোভিড পরিস্থিতিতে বিশেষ করে সারাদেশে যখন সাধারণ ছুটি ঘোষিত হয় সেসময় আর্ত মানবতার সেবায় আরবান কমিউনিটি ভলান্টিয়ারদের কাজের ভূয়সী প্রশংসা করেন, ভবিষ্যতেও যেকোনো দুর্যোগ পরিস্থিতিতে প্রথম সাড়াপ্রদানকারী হিসেবে তাঁদের এগিয়ে আসতে আহবান জানান। ৮ নং শুলকবহর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর আলহাজ্ব মোরশেদ আলম বলেন আরবান কমিউনিটি ভলান্টিয়ার হিসেবে আমি তাঁদেরকেই সিলেক্ট করেছি যারা প্রত্যেকেই একেক জন কাউন্সিলরের ভূমিকা পালন করবে।সাধারণত একজন কাউন্সিলর যে কাজগুলো করেন ভলান্টিয়ারগণ তাঁদের সামর্থ অনুযায়ী ( দাপ্তরিক কাজ বিহীন)  সে কাজগুলোয় করবে। তিনি আরো বলেন কোভিড পরিস্থিতিতে যারা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করেছেন তারা প্রত্যেকেই এক একজন যোদ্ধা, এই যোদ্ধারা আরো বেশি বেশি স্বপ্ন দেখবে, তাঁদের সে স্বপ্ন বাস্তবায়নের মধ্যে দিয়ে একদিন সত্যিকারের সোনার বাংলা রচিত হবে। প্রসংগত তিনি  বলেন কোনো অর্থপ্রাপ্তি ছাড়াই নগর স্বেচ্ছাসেবকগণ কাজ করে যাবে-ওয়ার্ড দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটি এবং আরবান কমিউনিটি ভলান্টিয়ারদের সু-পরিকল্পিত কাজের মধ্যে দিয়ে ভবিষ্যতে ৮ নং শুলকবহর ওয়ার্ড ঝুঁকিমুক্ত ও স্মার্ট ওয়ার্ড হিসেবে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনে দৃষ্টান্ত স্থাপন করবে বলেও তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।সভা শেষে প্রয়াস-২ প্রকল্পের পক্ষ থেকে ভলান্টিয়ারদের মাঝে মাক্স বিতরণ করা হয়।

See More

Latest Photos